সোমবার, ৫ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা নেতৃবৃন্দকে জুস পান করিয়ে অনশন কর্মসুচি ভাঙ্গান।

BNP Photoডেস্ক রিপোর্ট : বিএনপির চেয়ারপার্সন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ও তার জেষ্ঠ্য পুত্র বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান সহ দলীয় শীর্ষ পর্যায়ের নেতৃবৃন্দের নামে দায়েরকৃত রাজনৈতিক প্রতিহিংসামূলক মিথ্যা মামলা ও বিচার বহির্ভুত অব্যাহত গুম, খুন, অপহরন এর প্রতিবাদে ও দেশব্যাপী কারাবন্দি নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ সকাল ৯টা হতে বিকাল ৫টা পর্যন্ত জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি তার অঙ্গ ও সহযোগী সকল সংগঠনের উদ্যোগে পৌর আধুনিক সুপার মার্কেট প্রাঙ্গনে গণ অনশন কর্মসুচি পালিত হয়। উক্ত কর্মসুচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এডঃ হারুন আল রশিদ। নবগঠিত জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি আহ্বায়ক ও সাবেক পৌর মেয়র হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সদ্য কারামুক্ত নেতা জেলা আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব মোঃ জহিরুল হক খোকন জহির, যুগ্ম আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান, এডঃ শফিকুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল, হাজী মোঃ জাহাঙ্গীর, মোবারক মুন্সি, এডঃ গোলাম সারওয়ার খোকন, রফিকুল হক, এডঃ আনিসুর রহমান মঞ্জু।

জেলা বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক আলহাজ্ব এডঃ এ বি এম মোমিনুল হক ও সাবেক সহ প্রচার সম্পাদক মোঃ আলমগীর এর সার্বিক পরিচালনায় অনুষ্ঠিত গণ অনশন কর্মসুচিতে 
আরো বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা বার এর নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক এডঃ তরিকুল ইসলাম রুমা, সরাইল উপজেলা চেয়ারম্যান এডঃ আব্দুর রহমান, ডাঃ আব্দুল আজিজ, আবু শামীম মোঃ আরিফ, বাহার চৌধুরী, এডঃ করিম, মোঃ আজিম, মইনুল হোসেন চপল, জাতীয় পার্টি (জাফর) এর জেলা সদস্য সচিব মোঃ ইয়াছিনসহ ১৯ দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দ এবং স্মৃতি, এডঃ ইসমত আরা, খুশপিয়ারা কবির, আয়েশা খাতুন, মাহমুদা বেগম, শামসুন্নাহার, মোঃ আলী আজম, শামীম মোল্লা, হাজী মিজান, এডঃ আব্দুর রহিম গোলাপ, মোঃ মুছা, এডঃ মাসুদ, রাশেদ কবীর আখন্দ, বাইজিদ হেলাল, মোঃ হাফিজ উল্লাহ প্রমুখ। 
প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, গুম-খুন শেখ হাসিনার শ্রেষ্ঠ গুণ। গোটা দেশ লাশের গন্ধে ভারি হয়ে গেছে। দিনে দুপুরে মানুষ অপহরন এবং গুম হচ্ছে। সারা দেশে লাশের ছড়াছড়ি, যেন ইয়াযিদ এবং ফেরাউনের রাজ্যে আমরা বাস করছি। দেশে কোন আইনের শাসন নেই, মানবাধিকার নেই, গণতন্ত্র নেই। দেশের গণতন্ত্র আজ লাইফ সাপোর্টে আছে। এই শ্বারুদ্ধকর অবস্থা থেকে জাতিকে মুক্ত করার জন্য তীব্র আন্দোলন সংগ্রামের প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানান নেতৃবৃন্দ।
গণ অনশন কর্মসুচি চলাকালীন বিজয়নগর উপজেলা নির্বাচনে জেলা বিএনপি মনোনীত প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেয়া হয়। পাশাপাশি ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেস ক্লাবের সহ-সভাপতি সাংবাদিক আল আমীন শাহীন এর উপর সন্ত্রাসী আক্রমনের তীব্র নিন্দা ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন বক্তারা। শেষ পর্যায়ে দীর্ঘ সাড়ে ৪ মাস কারাভোগের পর কারামুক্ত ছাত্রদল নেতাকে ফুলের মালা দিয়ে বরন করে নেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি, সদস্য সচিব মোঃ জহিরুল হক খোকন ও যুগ্ম আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল। গণ অনশন কর্মসুচি শেষে শিশু রিয়ান সহ আরো কয়েকজন শিশু নেতৃবৃন্দকে জুস পান করিয়ে অনশন কর্মসুচি ভাঙ্গান।