সোমবার, ২৭শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কেন্দ্র দখল, জাল ভোট প্রদান ও সহিংসতার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ‘কাপ পিরিচ’ সমর্থক আওয়ামী সন্ত্রাসীদের দ্বারা কেন্দ্র দখল করে ভোট কারচুপি জোরপূর্বক ব্যালট পেপার ছিনতাই করে সরাসরি সীল মেরে ভোটের ফলাফল কাপ পিরিচ প্রতীকের পক্ষে নেওয়া এবং ব্যাপক সহিংসতার মাধ্যমে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার অর্ন্তগত দক্ষিণাঞ্চলে ৪টি ইউনিয়ন যথাক্রমে বাসুদেব, মাছিহাতা, সুলতানপুর ও রামরাইল ইউপির সকল ভোটকেন্দ্রসহ পৌরসভার বেশ কয়েকটি ভোট কেন্দ্র দখল করে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে অবৈধ ভোট প্রদান করে ‘কাপ-পিরিচ’ প্রতীককে বিপুল ভোটের ব্যবধানের বিজয়ী করার প্রতিবাদে জেলা বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এডঃ হারুন আল রশিদ এবং সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল হক খোকন একযুক্ত বিবৃতিতে এই অবৈধ নির্বাচনের তীব্র নিন্দা প্রকাশ করে এই নির্বাচনের ফলাফলকে প্রত্যাখান করে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, নির্বাচনের দিন বাসুদেব ইউনিয়নের চান্দি সেন্টারে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সহায়তায় কাপ পিরিচ প্রতীকের সমর্থকরা জাল ভোট প্রদানের সময় ফুটবল প্রতীকের প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট মোঃ জহিরুল হক খোকন ও টেলিফোন প্রতীকের নির্বাচনী এজেন্ট হাফিজুর রহমান মোল্লা কচি বাধা প্রদান করিলে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের সাথে এই নিয়ে বাক বিতন্ডা ও ধাক্কা ধাক্কির এক পর্যায়ে কাপ পিরিচ প্রতীকের সমর্থকরা অতর্কিত হামলা করে সহ জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এডঃ আনিছুর রহমান মঞ্জু, দপ্তর সম্পাদক এ বি এম মোমিনুল হক, সহ দপ্তর সম্পাদক এডঃ আলী আজম চৌধুরী, জেলা যুবদলের আহবায়ক মনির হোসেন ও বেশ কয়েকজন সাংবাদিককে নাজেহাল করে এবং মারধোর করে। 

এর প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকাল ৩টায় এক প্রতিবাদ বিক্ষোভ কর্মসূচীর ঘোষণা করা হয়। উক্ত বিক্ষোভ কর্মসূচীতে জেলা বিএনপি ও তার সকল অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ ১৯ দলীয় জোটের সর্বস্তরের নেতৃবৃন্দকে উপস্থিত হয়ে উক্ত কর্মসূচীকে সর্বাত্মক সফল করার উদাত্ত আহবান জানান জেলা বিএনপির সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল হক খোকন।