বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাঘে-মানুষে এক বারে মদ্যপান!

 


articleডেস্ক রিপোর্ট: ছুটির দিনে বন্ধুকে নিয়ে বারে গিয়ে মদ্য পান, এ এমন কি ব্যাপার৷ কিন্তু এমন বন্ধু? যাকে দেখে অন্যান্যদের হƒদপিণ্ড একেবারে হাতে আসার জোগার৷ বারের এককোণের একটি চেয়ারে মেজাজে বসে আছেন বাঘ মামা! তার সামনে রয়েছে পছন্দের ককটেল ব্ল্যাডিমেরি, তাও আবার ডায়েট৷ থাবা বাড়িয়ে চুমুক দিতে যাবেন বাঘ মামা এমন সময়ই বেঁধে গেল হৈচৈ৷
৫৭ বছরের ব্যাসিল৷ তাঁর পরম বন্ধু বাঘ মামা কে নিয়েই তিনি ছুটির দিনে মদ্যপান করতে আসেন আঙ্কেল রিচিস বারে৷ এসে তিনি অর্ডার করেন একটি ব্ল্যাডিমেরি নিজের জন্য এবং একটি ব্ল্যাডিমেরি ডায়েট তাঁর পোষ্য বাঘের জন্য৷ প্রথমবার নয়, এ নিয়ে তিনি বেশ কয়েকবার এসেছেন এই বারে৷ বাঘের গলায় দড়ি বাঁধা৷ পোষ্য বাঘটিকে দড়ি দিয়ে টেনেই তিনি রাস্তায় হাঁটতে বের হন৷ কিন্তু এদিনই বেঁধে গেল বিপত্তি৷ এর আগে তেমনভাবে কারো নজরে আসেনি ব্যাসিলের বন্ধু৷ এদিন খোলা রাস্তায় এক ব্যক্তিকে এইভাবে বাঘ নিয়ে যেতে দেখে বেঁধে গেল ধুমধুমাকার৷ হিংস্র প্রাণীকে এইভাবে জনবহুল এলাকায় নিয়ে যাওয়ার অপরাধে ব্যাসিলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ৷ তাঁর বিরুদ্ধে আনা হয়েছে একাধিক অভিযোগ৷ ফ্রান্সেস  এসকোয়ে নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, খোলা রাস্তার উপর দিয়েই ব্যাসিল তাঁর পোষ্য বাঘটিকে হাঁটিয়ে নিয়ে আসছিলেন৷ প্রথমে পথ চলতি জনতা বিশ্বাস করতে পারেননি এটি বাঘ৷ তা মালুম পড়তেই চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়৷  ঘটনাটি ঘটেছে শিকাগোতে।