বুধবার, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

খালি পেটে দুধ চা খেলে কী হয়

news-image

অনলাইন ডেস্ক : অনেকেরই সকালে উঠে খালিপেটে এক কাপ দুধ চা খাওয়ার অভ্যাস আছে । তাতেই তাদের শরীরে শক্তি ছড়িয়ে পড়ে বলে তারা দাবি করেন। কিন্তু খালি পেটে দুধ চাওয়া কি ঠিক?

এ নিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম ‘এই সময়ে’র প্রতিবেদনে বিভিন্ন পরামর্শ দিয়েছেন পুষ্টিবিদ কোয়েল পাল চৌধুরী।

এই পুষ্টিবিদ জানান, চা অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভাণ্ডার। এই উপাদান শরীরে প্রদাহের প্রকোপ কমাতে বিশেষ কার্যকর। তাই নিয়মিত চায়ের কাপে চুমুক দিলে নানা ধরনের রোগ এড়ানো যায়। এছাড়াও চায়ে এমন কিছু উপাদান থাকে যা ব্রেনে হ্যাপি হরমোন ক্ষরণে সাহায্য করে। তাই চা খেলে মন ভালো হয়। এমনকী মনোসংযোগ করতে খুবই সুবিধা হয়।

খালিপেটে দুধ চা খাওয়া উচিত?​
এই প্রসঙ্গে কোয়েল পাল চৌধুরি জানালেন, সুস্থ থাকতে দুধ চা এড়িয়ে চলাটাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ। বিশেষ করে খালিপেটে দুধ চা খাওয়া একেবারে ঠিক নয়। কারণ এতে গ্যাস-অ্যাসিডিটির প্রকোপ আরও বাড়ে। এমনকী খালিপেটে দুধ চা খেলে ক্রনিক গ্যাসট্রাইটিসের সমস্যা বাড়ারও আশঙ্কা থাকে।

কোয়েল পাল চৌধুরির কথায়, দুধ চা খাওয়ার তুলনায় লিকার চা খাওয়া বহুগুণে স্বাস্থ্যকর। এমনকী সকালে খালিপেটেও লিকার চা খেলে শারীরিক সমস্যার তেমন আশঙ্কা নেই। তবে লিকার চায়ে চিনি মেশানোর অভ্যাসটা ছাড়তে হবে। তাহলে ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে। ডায়াবেটিসের আশঙ্কাও কমে যাবে।

তবে অনেকের দুধ চা ছাড়া চলে না। সেক্ষেত্রে পেটভরে খাবার খাওয়ার অন্ততপক্ষে ৩০ মিনিট বাদে ১ কাপ দুধ চা খেতে পারেন। এই কাজটা করলে গ্যাস, অ্যাসিডিটিতে ভোগার আশঙ্কা কমে।

দিনে কত কাপ চা খাওয়া উচিত?​
পুষ্টিবিদ কোয়েলের মতে, লিকার চা খেলে দিনে ৩ থেকে ৪ কাপ চলতে পারে। তবে দুধ চা খেলে দিনে দুই বারের বেশি খাওয়া ঠিক নয়। তা না হলে গ্যাস, অ্যাসিডিটি থেকে শুরু করে লিভার ও কিডনির মতো অঙ্গের ক্ষয়ক্ষতিও হতে পারে।