শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুধারসনের সেঞ্চুরিছোঁয়া ইনিংসে গুজরাটের রানপাহাড়

news-image

স্পোর্টস ডেস্ক : ১৯তম ওভারে শেষে গুজরাট লায়ন্সের রান ২০০ আর সাই সুধারসনের ৮৪। সেঞ্চুরি করাটা তাই খুব একটা সহজ কাজ ছিল না। তবে শেষ ওভারের প্রথম দুই বলে জোড়া ছক্কা হাঁকিয়ে সম্ভাবনা জোড়ালো করেন তিনি। কিন্তু দুর্ভাগ্য, তৃতীয় বলে সেঞ্চুরি থেকে মাত্র চার রান থাকতে মাথিশা পাথিরানার বলে এলবিডাব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন তিনি। সুধারসন সেঞ্চুরি না পেলেও দলের রান হয়েছে পাহাড়সম। নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৪ উইকেট হারিয়ে ২১৪ রান করেছে গুজরাট।

বৃষ্টির বাগড়ায় নির্ধারিত দিন গতকাল রোববার মাঠে গড়ায়নি আইপিএলের ফাইনাল। রিজার্ভ ডে থাকায় আহমেদাবাদের নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে আজ সোমবার তাই খেলা হচ্ছে। ম্যাচে টস জিতে গুজরাট টাইটানসে ব্যাটিংয়ে পাঠিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংস।

ব্যাটিংয়ে নেমেই চেন্নাইয়ের বোলারদের ওপর ঝড় বইয়ে দেন গুজরাটের দুই ওপেনার শুভমান গিল ও ঋদ্ধিমান সাহা। প্রথম দুই ওভারে মাত্র আট রান আসলেও ঝড় শুরু করেন তৃতীয় ওভার থেকে। চাহারের করা তৃতীয় ওভার থেকে আসে ১৬ রান। চতুর্থ ওভারে ১৪, পঞ্চম ওভারে ১১ রান আর পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে আসে ১৩ রান।

তবে রবীন্দ্র জাদেজার করা সপ্তম ওভারের শেষ বলে ফিরতে হয় আসরজুড়ে আগুনে ফর্মে থাকা শুভমান গিলকে। দলীয় ৬৭ রানের মাথায় ধোনির ক্ষিপ্র স্ট্যাম্পিংয়ে অর্ধশতক তোলার আগেই ড্রেসিংরুমের পথ ধরেন গিল। যাওয়ার আগে ২০ বলে ৭ চারে ৩৯ রান করেন গুজরাটের এই ওপেনার। যদিও দ্বিতীয় ওভারেই ফিরতে পারতেন তিনি। তুষার দেশপান্ডের করা সেই ওভারে গিলের ক্যাচ ফেলেন দীপক চাহার।

গিলের আউটের পর গুজরাটের রান তোলার গতি ধীর হয়ে আসে। দলীয় ১০০ রান আসে ১১ ওভার ১ বলে। তবে দলীয় শতরান পূর্ণ হওয়ার পর খোলস ছেড়ে বের হওয়া শুরু করেন ওয়ান ডাউনে নামা সাই সুধারসন। একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকাতে থাকেন তিনি।

হাফ সেঞ্চুরি করে ১৪তম ওভারের শেষ বলে চাহারের শিকারে পরিণত হন সাহা। যাওয়ার আগে ৩৯ বলে ৫টি চার ও ১টি ছক্কায় করেন ৫৪ রান। চারে ব্যাট করতে নামেন অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া।

অধিনায়ককে ক্রিজে দেখে ব্যাটিং তেজ আরও বেড়ে যায় সুধারসনের। ১৫তম ওভারে মহেশ থিকসানার বল ২ বার সীমানার ওপারে আছড়ে ফেলেন। দেশপান্ডের করা ১৭তম ওভারে একটি ছক্কার সঙ্গে মারেন ৩টি চার। ৩৩ বলে হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করা সুধারসন শেষ পর্যন্ত আউট হন ৯৬ রান করে। ৪৭ বলের ইনিংসি ৮টি চার ৬টি ছক্কায় সাজান তিনি। পান্ডিয়া অপরাজিত ছিলেন ২১ রানে।

আজকের ফাইনালে জিতলে পঞ্চমবারের মতো আইপিএলের শিরোপা ঘরে তুলবে চেন্নাই। আর গতবারের চ্যাম্পিয়ন গুজরাট টাইটানসের সামনে সুযোগ শিরোপা ধরে রাখার। এই ম্যাচে মাঠে নেমেই একটি রেকর্ড গড়ে ফেলেছেন চেন্নাইয়ের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। আইপিএলে এখনো পর্যন্ত ২৫০ ম্যাচ খেলার মাইলফলক অর্জন করেছেন ভারতের সাবেক এই অধিনায়ক। এই মাইলফলকে পৌঁছানো প্রথম ক্রিকেটার ধোনি। বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, সম্ভবত এটাই হতে যাচ্ছে ধোনির ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।