শনিবার, ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শামীম ওসমান আইভি বাকবিতন্ডা (ভিডিও)

IV Shamimডেস্ক রির্পোট : নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী একাত্তর টেলিভিশনের ‘একাত্তর সংযোগে’ মুখোমুখি হয়েছেন।
টকশোতে কথা বলার এক পর্যায়ে সেলিনা হায়াত আইভী, সরাসরি শামীম ওসমানকে নারায়ণগঞ্জের গডফাদার হিসাবে অভিহিত করলে দুই জনের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় শুরু হয়। এক পর্যায়ে সাংবাদিক গোলাম মুর্র্তজা অংশগ্রহণ করেন।
মঙ্গলবার রাত আটটায় এই টকশো শুরু হওয়ার পরপরই হট্টগোল বাধে। উভয়ই উভয়কে দোষারোপের এক পর্যায়ে দুজনই বাকবিত-ায় জড়িয়ে পড়েন।
উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়ের এক পর্যায়ে শামীম ওসমান বলেন, এই টকশোতে আইভী থাকবেন তা আমাকে আগে জানানো হয়নি।
এই অভিযোগ করার পর সেলিনা আয়াৎ আইভী টকশো ত্যাগ করার জন্য দাঁড়িয়ে যান। এ পর্যায়ে সঞ্চালক আইভীকে থামানোর চেষ্টা করেন।
সঞ্চালক বলেন যে এই টকশোতে আইভী থাকবেন তা শামীম ওসমানকে আগেই জানানো হয়েছে। পরে টকশোতে খানিকটা বিরতি দিয়ে বিষয়টি সুরাহা করা হয়।
আইভি রহমান বলেন,  তাকে তো আমার গডফাদার বলাটা ভুল হয়নি। এই হত্যা কান্ডের সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ ভাবে জড়িত থাকার কথাটা আমার ভুল হয়নি। হত্যাকান্ডটি সংগঠিত করেছে র‌্যাব কিন্তু র‌্যাবের যোগান দাতা কারা?
শামীম ওসমান বলেন, সে আমাকে গডফাদার বলেছে এটা তার ব্যাপার। যাকে আমি একজন দূর্নীতির নায়িকা হিসেবে দেখি। তার নিজের পটভূমি, তার পরিবারের পটভূমি সব মিলিয়ে আমি তার প্রশ্নের উত্তর তাকে ফিরিয়ে দিতে চাইনা। কারণ এটা আমার রুচিতে বাধে। সবকিছু বলার মধ্যে মানুষের একটা রক্তের পরিচয় পাওয়া যায়। সেই হিসেবে সে বলল যে, তাকে আমি গডফাদার বলছি। আমি প্রথমেই বলব নজরুল কার লোক? নজরুল শামীম ওসমানের লোক। শামীম ওসমান ওকে পাঠিয়ে দিয়েছে। নজরুলকে ছাত্র লীগের সেক্রেটারি বানিয়েছি। নজরুল রাজনীতিতে আইভি রহমানের চেয়েও সিনিয়র। নজরুলকে একদম শুরু থেকেই আমি ছাত্র লীগের সেক্রেটারি বানিয়েছি। সে হিসেবে নজরুল আমার লোক। নজরুল পরিবার জানে এবং নজরুল নিজেও জানে। সবাই তা জানে। নূর হোসেন কার লোক? নুর হোসেনও আমাদের দলের লোক। আমার বিরুদ্ধে এই সব অভিযোগ করেছে আইভি।
শামীম ওসমান আরো বলেন, নজরুল যখন অপহরণ হলো। এটা আমি অনেক আগে থেকেই জানতাম। র‌্যাব তার একটা ক্ষতি করতে পারে। নুর হোসেন আমার সাথে দেখা করতে আসেনি বরং নজরুলের পরিবারের সকল সদস্য আমি রাইক্লাবে আসতে আসতে তারা সবাই সেখানে উপস্থিত হয়েছে। সেখানে নারায়ণগঞ্জের গণ্যমান্য সহ কয়েকশ লোক উপস্থিত ছিল। সেখানে নজরুলের স্ত্রী এবং শ্বশুর আমাকে বার বার বলে নুর হোসেনকে খবর দেওয়ার জন্য। আমি নুর হোসেনকে ফোন করে বলি তুমি কোথায়? আমি বলি আমি বাসায় আছি। আমি জিজ্ঞাসা করি নজরুল কোথায়? সে আমাকে বলে সেটা আমাকে জিজ্ঞাসা কর কেন? তারপর সে আমার কাছে চলে আসে।
আমি নুর হোসেনকে বলেছি যদি নজরুলের কোনো ক্ষতি হয় তাহলে আমি তোমাকে ছাড়বো না। সেখানে বসেই আমি স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীকে জানাই, আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছি এবং র‌্যাবের এডিজিকে জানিয়েছি।
এবার শামিম ওসমানকে আইভি প্রশ্ন করেন, গৌরদার সঙ্গে দেখা কর এটা আপনি বলেন নি?
কিন্তু এই প্রশ্নের উত্তরে শামীম ওসমান রাগ হয়ে একাত্তর টিভির উপস্থাপকে বলেন, আপনারা একজন অতিথির কথা বলে সাথে আরেকজনকে আনবেন সেটাতো কথা ছিলনা। আমি সবখানে জানানোর পর জানতে পারি র‌্যাব এই ঘটনার সাথে জড়িত। র‌্যাব তাকে উঠিয়ে নিয়ে গেছে।
উপস্থাপক জানতে চান, কিভাবে তিনি এই খবর জানতে পারেন।
জবাবে শামীম ওসমান বলেন, আমি একজন জনপ্রতিনিধি, তাই এটা আমার কাছে জানা কোনো ব্যাপারই না। আমি যখন শুনেছি নজরুলকে নিয়ে গেছে তখন আমি খুবই চিন্তিত হয়ে পড়ি। কারণ আমরা তখন নজরুলকে নিয়ে কথা বলছিলাম। কিন্তু যখন শুনেছি নজরুলের সাথে আরো ৬ জন মোট ৭ জনকে ধরে নিয়ে গেছে তখন আমি নিশ্চিত হই তাদের কিছু হবে না। কারণ নজরুলকে ধরার জন্য কারো নির্দেশ থাকে তাহলে তার জন্য ৭ জনের ক্ষতি হতে পারে না। কিন্তু তারপরও আমি সবাইকে ব্যাপারটা জানিয়ে রাখি।
নূর হোসেন কেমন ছিল? সেও (আইভি) যেমন জানত আমিও তেমন জানতাম। কারণ নুর হোসেন তো তার কাউন্সিলর ছিল। নুর হোসেন আমার কাছের লোক। সে হিসেবে নুর হোসেনকে এতটা প্রশ্রয় দেওয়া উচিত নয়। নজরুলকেই দেওয়া হয়েছে।
নজরুলকে দেওয়া হয়েছে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ কমিটির সদস্য। তার পনের দিন আগে তারই মিটিংএ নজরুলের সাথে তার বাকবিতন্ডা হয়েছিল একটা কাজ নিয়ে। তারই বন্ধু সুফিয়ানকে কাজ দেওয়া হয়েছিল। কেন দেওয়া হয়েছিল? এটার জন্য নজরুল প্রতিবাদ করেছিল। প্রতিবাদ করার জন্য সেও খ্যাপা হয়ে গিয়েছিল এবং নজরুলও উত্তেজিত হয়েছিল।
আইভি রহমানকে প্রশ্ন করা হয়। নুর হোসেন ছিল আপনার কাউন্সিলর এবং নজরুলকে শাসিয়ে গেছে আপনার হয়ে।
জবাবে আইভি রহমান বলেন, স্থানীয় সরকারগুলোতে কিছু স্থায়ী কমিটি থাকে সেটা পৌরসভাতে আছে এবং সিটি করপোরেশনেও আছে। সিটি কর্পোরেশনের ২২টি স্থায়ী কমিটি আছে। সেখানে কোনো নির্বাচন না হয়ে যে যে পদ নিতে ইচ্ছুক তাকে সে পদ দেওয়া হয়েছে।
সাপ্তাহিক পত্রিকার সম্পাদক গোলাম মর্তুজাকে প্রশ্ন করা হয় আপনি এটা কিভাবে দেখছেন।
তিনি বলেন, সেলিনা হায়াত আইভি যদি দুর্নীতি বাজ হয়ে থাকে এবং সেটার যদি কোনো প্রমাণ থেকে থাকে তাহলে বাংলাদেশের সেটার আইন আসে তদন্ত কমিটি আছে। তারা সেটা তদন্ত করে দেখবে।
নারায়ণগঞ্জ ছিল এক সময় বাণিজ্য নগরী সেখানে বড় বড় ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করত। কিন্তু সন্ত্রাসের জনপথ হয়ে যাওয়ায় ব্যবসায়ীরা তাদের পরিবার নিয়ে ঢাকায় চলে আসেন এবং তাদের ব্যবসাও সেখান থেকে সরিয়ে ফেলেন।
সাপ্তাহিক পত্রিকার সম্পাদক গোলাম মর্তুজা বলেন, নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের ঘটনায় নুর হোসেন জড়িত ছিল না এই কথা শামীম ওসমান বলেন। কিন্তু নুর হোসেন ছিল শামীম ওসমানের পাশের লোক। নুর হোসেন যখন বলে তুমি পালিয়ে যাও তখন এই ঘটনার সাথে নুর হোসেনের সাথে শামীম ওসমানের একটা সম্পর্ক তৈরি হয়ে যায়।
জবাবে শামীম ওসমান বলেন, নুর হোসেন যখন আমার সাথে ফোনে কথা বলে তখন নুর হোসেন বলেন, আপনি আমার বাপ লাগেন আপনি আমাকে বাঁচান। আমি আপনার কথা না শুনে ভুল করেছি। তার মানে আমার এখানে কোনো দোষ ছিল না।

https://www.youtube.com/watch?v=L4qnWeO0-X4#t=207

 

এ জাতীয় আরও খবর

ঈদের পর শনিবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা নিয়ে যা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী

‘নেতানিয়াহুকে গ্রেপ্তার’ দাবিতে বাংলাদেশের সমর্থন আছে

এমপি আনার হত্যায় ৮ দিনের রিমান্ডে তিন আসামি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক হাসপাতালে ভর্তি

ফাইনাল কলকাতার প্রতিপক্ষ হায়দরাবাদ

সরকার আজিজ ও বেনজীরের দুর্নীতির অংশীদার: দুদু

সাগরতলে ১৭ বিলিয়ন ডলারের ধনরত্ন

বান্দরবানে সীমান্তে মাইন বিস্ফোরণ, বাংলাদেশি যুবকের পা বিচ্ছিন্ন

ঘূর্ণিঝড় ‘রেমাল’ প্রবল হয়ে আঘাত হানতে পারে রোববার সন্ধ্যায়

জিহাদকে নিয়ে আনারের দেহাংশের খোঁজ চলছে ভাঙ্গরে

এবার সোমালি জলদস্যুদের কবলে এমভি ব্যাসিলিস্ক

‘বাবার লাশের ছোট্ট টুকরো হলেও স্পর্শ করতে চাই’