সোমবার, ১৭ই জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ৩রা মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বেনজীরের নজীরবিহীন জেহাদ

benazir_ahmed_dmp_police_commisssioner_15082অবশেষে ফলে বিষ মেশানোর বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষণা করেছেন ডিএমপি কমিশনার বেনজীর আহমেদ। তার এ জেহাদের সত্যিই কোনো নজীর হয় না। তার নামের সঙ্গে পুরোপুরি মিল রয়েছে এ অভিযানেরও। তিনি সংকল্প করেছেন, ঢাকায় ২ কোটি মানুষের কাছে কোনো বিষাক্ত ফল তিনি ঢুকতে দেবেন না। ফরমালিন, কার্বাইড সহ বিভিন্ন বিষাক্ত রাসায়নিক পদার্থ এখন বাগান, ফলের আরৎ কিংবা চেইন শপগুলোতে মেশানো হয়।
দীর্ঘ দিন ধরে এটা হয়ে আসছে। যারা খাচ্ছেন তারা আক্রান্ত হচ্ছেন ভয়াবহ রোগে। কারো কারো কিডনি পচে যাচ্ছে। কেউবা আক্রান্ত হচ্ছে ক্যান্সারে। তো হঠাৎ করে ডিএমপি কমিশনার সাংবাদিক সম্মেলন করে এধরনের জেহাদ ঘোষণার আগে ইংরেজি কাগজ ডেইলি স্টারে শীর্ষ শিরোনাম হয়ে আসে ফলে বিষ মেশানোর খবরটি। এতেই জেহাদে ঝাঁপ দিচ্ছেন বেনজীর আহমেদ নাকি রমজানের আগে কিছু কামানোর ধান্ধা কি না এ নিয়ে মন্দ লোকদের যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। কারণ দীর্ঘদিন ধরে এধরনের ফরমালিন প্রথমে মাছে দিয়ে ঘাতক ব্যবসায়ীরা সাহস সঞ্চয় করে ফলমূলে দিতে শুরু করেছে। তখনো পুলিশের অভিযান হয়নি তা নয়, মাঝপথে সবকিছু ম্যানেজ হয়ে যাওয়ার অপসংস্কৃতিতে থেমে গ্যাছে সেই সব অভিযান। মাঝখান থেকে ফরমালিন ব্যবহার শুরু হয়েছে রাজনীতিতে।
এবারো দু’চার ট্রাকে ফরমালিন বা কার্বাইড দেয়া আম রাজধানীতে ঢুকে পড়ার পর বেনজীরের সৈন্যরা তা পাকড়াও করবেন। তারপর বুলড্রোজার দিয়ে তা মাটিতে পিষে ফেলা হবে। হামলে পড়বেন টেলিভিশন ক্যামেরা পারসন থেকে শুরু করে মিডিয়া কর্মীরা। তারপর নিউজ হেডলাইন। ব্যস অভিযান শেষ করে বেনজীরের সৈন্যরা ব্যারাকে ফিরবেন। তৃপ্তির হাসি হাসবেন বেনজীর।
কিন্তু ভাই বেনজীর কুইনাইন জ্বর সারাবে, কিন্তু কুইনাইন সারাবে কে? স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী এখন ফরমালিন ব্যবহার করতে শুরু করেছেন। ফরমালিন দিয়ে বিএনপি’কে চাঙ্গা রাখছেন। ফরমালিনের সুদূরপ্রসারী এ ব্যবহার কি পুলিশী অভিযানে দূর হবে ক্যামনে? ফরমালিনের ব্যবহার তো একদিনে ছড়িয়ে পড়েনি। শুধু ঢাকা শহরে ফলের মাসে বিষাক্ত ফল ঢুকতে দেয়া হবে না, এমন ঘোষণা দেয়ার অর্থ কি বেনজীর আহমেদ ঢাকার বাইরে বাকি ১৪ কোটি মানুষকে মানুষ মনে করেন না। সেখানে পুলিশ রয়েছে, তো কেনো সেখানেও একই ধরণের অভিযান হবে না। হয়ত বলবেন, ঢাকার বাইরে এখতিয়ার অন্যের। নাকি ঢাকার বাইরে যারা থাকেন তাদের বিষাক্ত ফল খেয়ে কোনো সমস্যা হলে তা দেখার কেউ নেই।
ঝটিকা অভিযান দিয়ে এক মৌসুমে ফলে বিষাক্ত রাসায়নিক মিশ্রণ মেশানো বন্ধ করা যে সম্ভব নয় তা বুঝে যদি বেনজীর আহমেদ বলতেন যখনি সম্ভব হবে এধরনের অভিযান যে কোনো স্থানে যে কোনো সময়ে প্রয়োজন মত করা হবে আর পুলিশকে এ কাজে যারা সহায়তা করবে তাদের জন্যে থাকবে পুরস্কারের ব্যবস্থা তাহলে একটা জো হলেও হতে পারত। ফরমালিন ওয়ালাদের কানে পানি যেত। পিলে চমকে উঠত। ফরমালিন মিশিয়ে মিশিয়ে তাদের লাজ লজ্জা নেই, গুনাহের ভয় নেই। তারা পুলিশ, প্রশাসন, ম্যাজিস্ট্রেট, মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনের তদারকি কর্মী থেকে শুরু করে বিষয়টি দেখভাল করতে যারা মহান দায়িত্ব পালন করছেন তারা সহ এ কাজে গুরুতর শাস্তি যারা দেবেন, যারা এ কাজে বিশেষ ক্ষমতা আইন ব্যবহার করার সুযোগ পেয়েছেন তাদের পর্যন্ত পয়সা দিয়ে অথবা ফরমালিন দিয়ে জ্যান্ত মৃত করে রেখেছেন। জ্যান্ত মৃত মানে মনে হবে জীবিত, মুখে বলবেন কিছু একটা করা দরকার কিন্তু মৃত মানুষের মত তারা অবশ থাকেন দিনের পর দিন। তা কিন্তু ওই ফরমালিন বলুন কিংবা পয়সা বলুন তারই কৃপায়।
খোঁজ নিলেই দেখা যায়, লোকবলের অভাব, ল্যাবরেটরির অভাব, আইন প্রয়োগের অভাব। তাহলে বেনজীরের এই নজীরবিহীন জেহাদে কি কিছু হবে। এমন কি যারা এসব বিষয় জনগুরুত্ব ভেবে পত্রিকায় ভাবরসের কলাম লেখেন তারা পর্যন্ত এখন ফরমালিনে আসক্ত হয়ে পড়েছেন। তাদের কলমে হয় কালি নেই কিংবা কলমের ছিপি অজানা কারণে বন্ধ হয়ে গেছে, খুলছে না। তাই ফরমালিনের বিরুদ্ধে লেখা হচ্ছে না। লেখতে গেলেই তো সরকারের গায়ে লাগে। কারণ প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধে অসামান্য অবদান রাখার জন্যে দেয়া সন্মাননা পদকে যারা ভেজাল মিশিয়েছেন তার চেয়ে বড় কথা হল এ নিয়ে কে চেচামেচি করছেন। কারণ স্বর্ণকাররা মায়ের জন্যে অলঙ্কার বানাতে গেলেও সুযোগ পেলে একটু আধটু স্বর্ণ চুরি করে। এই একটু আধটু ফরমালিন, কার্বাইড ব্যবহার করতে করতে এখন টনকে টন ফলে মেশানো হচ্ছে। এতে ডাক্তারদের রোগী বেড়েছে। হাসপাতালের আয় বেড়েছে। নির্ঘাৎ তা জাতীয় উন্নয়ন বা জিডিপি’তে তা অবদান রাখছে। না রাখলে অর্থমন্ত্রী কখনো বলতে পারতেন না সোনালী ব্যাংকের ৪ হাজার কোটি টাকা কোনো টাকাই না।
তাই আসল ফরমালিন ফলে নয়, আমাদের মগজে ঢুকে পড়েছে। যারা জাতির নিশানবরদার তাদের মগজে কার্বাইড বেশ ভালই কাজ করছে। কারণ তা না হলে কেউ কি আদালতকে পরোয়া না করার কথা বলতে সাহস পান। তবুও সাহস করে বেনজীর আহমেদ ফরমালিন ও কার্বাইড বা বিষ মেশানো ফল ঢাকায় ঢুকতে অভিযান শুরু করেছেন সে জন্যে তাকে ধন্যবাদ। এমন বুকের পাটা কয়জনের থাকে। হয়ত ঢাকা ছাড়িয়ে এমন অভিযান সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তৃতি লাভ করলে ভারত থেকে ফেনসিডিল কিংবা মিয়ানমার থেকে ইয়াবা ঢুকবে না। প্রয়োজন হলে ঢাকায় ডিজে পার্টি না জমবে কিন্তু দুষ্টের পালন ও শিষ্টের পালন পুলিশ এবার করেই ছাড়বে।
পরিশেষে এটুকু সাহস দিয়ে রাখি যে শুধু যে বাংলাদেশে ফরমালিন, কার্বাইড শুধু নয়, আরো অনেক দেশে ব্যবহার হয়। হ্যা হয়ত এসব দেশে ধরা পড়লে জামিন হয় না। বিচার হয়। কঠিন শাস্তি হয়। তবে বিষ ব্যবহার হয়। একটি উদাহরণই যথেষ্ট। সৌদি আরবের গ্রাণ্ড মুফতি শেখ আব্দুলআজিজ আল-আশিখ বলেছেন, মেয়াদ উত্তীর্ণ খাবার বিক্রি করা পাপ। ব্যবসায়ীদের সাবধান করে দিয়ে বলেছেন, এধরনের অপরাধ হত্যা বা খুনের শামিল। গ্রাণ্ড মুফতি সৌদি আরবের কাউন্সিলর অব সিনিয়র স্কলারস’এর চেয়ারম্যান। এ দেশটিতে মাস কয়েক আগে সব্জি কেনার পর তা রান্নার সময় দুর্গন্ধ বের হওয়ায় পুলিশকে ভোক্তারা অভিযোগ করার পর তদন্তে দেখা যায় কয়েকটি খামারে পয়:নিষ্কাশনের পানি ব্যবহার করা হচ্ছে। পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই খামারগুলো ভেঙ্গে দেয় এবং তার মালিককে বেশ কয়েক বছর সব্জি চাষ থেকে বিরত থাকার নির্দেশ দেয়।
তবে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকায় ওয়াসা থেকে শুরু করে বিভিন্ন নর্দমার পানি রিসাইক্লিং করার আগে বুড়িগঙ্গায় যেয়ে পড়ছে এবং তা দেখে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, নদীটির দিকে তাকালে চোখ দিয়ে পানি আসে। তাই বিষাক্ত ফল খেতে খেতে রোগ ব্যাধির আরো বিস্তার লাভ করার পর সকলের চোখে পানি আসার আগে প্রতীকি হিসেবে পুলিশের এমন অভিযানকে স্বাগত জানাই। সমস্যা হচ্ছে ফরমালিন এখন ঢুকে পড়েছে গণভবনেও। তখন ফরমালিন দূর করা দু:সাধ্য বটে। কিন্তু ভরসা ওখানেই, মানুষের অসাধ্য কিছুই নেই।

amadershomoys.com

এ জাতীয় আরও খবর

বিপিএলের ম্যাচ কবে কখন কোথায়, দেখে নিন

রংপুরের পীরগাছায় মুক্তিপণ না পেয়ে শিশুকে হত্যা, দুই আসামির আমৃত্যু কারাদন্ড

করোনায় আরও ১২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৫৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ত্রিমুখী সংঘর্ষে নিহত ২

প্রথম দিনেই উপেক্ষিত স্বাস্থ্যবিধি

পাথরঘাটায় টিকা নিয়ে ১০ শিক্ষার্থী অসুস্থ

প্রার্থিতা বাতিলের ভয় দেখিয়ে টাকা দাবি, নির্বাচন কর্মকর্তাকে অব্যাহতি

বাংলাদেশ ফুটবল দলের ইন্দোনেশিয়া সফর বাতিল

ডমিঙ্গোর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাল বিসিবি

‘সরকারি কর্মচারীদের আচরণে যেন সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন না হয়’

বাংলাদেশের চাকরি ছেড়ে পাকিস্তানে গিবসন

দেশটাকে নিয়ে আজ ভাগ বাটোয়ারার হাট বসেছে : রিজভী