বৃহস্পতিবার, ১১ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অকল্যান্ডে ভারতের হার

52f7113d7afe4-India_Imageক্রিকেট বিশ্বের নিয়ন্ত্রণটা সফলভাবেই নিজেদের হাতে নিতে পেরেছে ভারত। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসিকে বদলে দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে ভারতাধিপত্য। আইসিসির চেয়ারম্যানের আসনে বসাটাও নিশ্চিত হয়েছে নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসনের। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে ক্রমাগত দুর্বল থেকে দুর্বলতর হয়ে পড়ছে ভারত। নিউজিল্যান্ড সফরের ওয়ানডে সিরিজটা ৪-০ ব্যবধানে হারের পর এবার টেস্টেও ব্যর্থ হয়েছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। জয়ের অনেক কাছাকাছি গিয়েও শেষ পর্যন্ত ৪০ রানের হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে ভারতকে। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে নিউজিল্যান্ড এগিয়ে গেছে ১-০ ব্যবধানে।



ভারতকে জয়ের সুযোগটা তৈরি করে দিয়েছিল নিউজিল্যান্ডই। প্রথম ইনিংসে ৫০৩ রান করতে পারলেও ভয়াবহ ব্যাটিং বিপর্যয়ের মুখে পড়ে কিউইদের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়েছিল মাত্র ১০৫ রানে। ভারতের সামনে জয়ের লক্ষ্য নির্ধারিত হয়েছিল ৪০৭ রান। সেই লক্ষ্যে তারা এগিয়েও যাচ্ছিল ভালোভাবেই। শিখর ধাওয়ানের সেঞ্চুরি আর বিরাট কোহলির ৬৭ রানের সুবাদে একসময় জয়ই দেখছিল ভারত। আজ চতুর্থ দিনের শুরুতেই চেতেশ্বর পূজারার উইকেট হারালেও তৃতীয় উইকেটে ১২৬ রানের জুটি গড়ে জয়টা প্রায় নাগালের মধ্যেই নিয়ে এসেছিলেন ধাওয়ান ও কোহলি। কিন্তু দলীয় ২৪৮ রানের মধ্যে এই দুজনকেই সাজঘরে ফিরিয়ে কিউই শিবিরে স্বস্তি ফেরান নিল ওয়াগনার। তখনো ম্যাচে ছিল ভারতেরই নিয়ন্ত্রণ। ওই মুহূর্তে জয়ের জন্য ভারতের দরকার ছিল ১৫৯। 



হাতে ছিল আরও ছয়টি উইকেট। কিন্তু এরপর দুর্দান্ত বল করে ম্যাচের লাগাম ভারতের হাত থেকে ছিনিয়ে নেন ওয়াগনার আর ট্রেন্ট বোল্ট। ১১৮ রান জমা করতেই শেষ ছয়টি উইকেট হারিয়ে বসে ভারত। শেষদিকে ঝোড়ো ব্যাট করে জয় তুলে নেওয়ার চেষ্টা করেছিলেন ভারতীয় অধিনায়ক ধোনি ও রবীন্দ্র জাদেজা। কিন্তু তাঁদের সেই প্রচেষ্টা সফল হয়নি। ৪১ বলে ৩৯ রান করে ওয়াগনারের শিকার হয়েছেন ধোনি। ২১ বলে ২৬ রান করে সাজঘরে ফিরেছেন জাদেজা।