মঙ্গলবার, ৯ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মন্ত্রিত্ব হারাচ্ছেন যারা

Minister loss ‘সর্বদলীয়’ মন্ত্রিসভা গঠনের জন্য গত সোমবারের মধ্যে সরকারের সব মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। অবশ্য এ পদত্যাগপত্র এখনো রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের কাছে জমা দেয়া হয়নি। তবে কয়েকজনের পদত্যাগপত্র রেখে অন্যদের রাষ্ট্রপতি বরাবর আগামীকাল মঙ্গলবার পাঠানো হবে বলে জানা গেছে।বাংলামেইল

 

সূত্র জানায়, অন্তর্র্বতী সরকারের মন্ত্রিসভা থেকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরাও বাদ পড়ছেন। তাদের স্থলে যুক্ত করা হয়েছে নতুন ছয় মন্ত্রী ও দুই প্রতিমন্ত্রীকে। নতুন মন্ত্রীদের মঙ্গলবারই মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব ভাগ করে দেবেন প্রধানমন্ত্রী। তবে অন্তর্র্বতীকালীন মন্ত্রিসভায় গুরুত্বপূর্ণ কোনো মন্ত্রণালয় ছাড়ছে না ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ।    

 

বাদ পড়ছেন যারা:

আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী (বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়), এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) একে খন্দকার (পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়), রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু (শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়), অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন (ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়), ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন (প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়), সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত (দপ্তরবিহীন), খাদ্যমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক, মো. রেজাউল করিম হীরা (ভূমি মন্ত্রণালয়), আবুল কালাম আজাদ (সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়), এনামূল হক মোস্তফা শহীদ (সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়), দিলীপ বড়ুয়া (শিল্প মন্ত্রণালয়), রমেশ চন্দ্র সেন (পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়), মুহাম্মদ ফারুক খান (বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়), ডা. মো. আফসারুল আমিন (প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়) ডা. আ ফ ম রুহুল হক (স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়), আব্দুল লতিফ বিশ্বাস (মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়), শাজাহান খান (নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়), আবুল হাসান মাহমুদ আলী (দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়), মোস্তফা ফারুক মোহাম্মদ (তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়), মো. মুজিবুল হক (রেলপথ মন্ত্রণালয়)।

 

প্রতিমন্ত্রী:

অন্তর্র্বতী সরকারের মন্ত্রিসভায় থাকছেন না পুরাতন কোনো প্রতিমন্ত্রী। তাদের সবারই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

 

তারা হলেন- অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান, (ভূমি মন্ত্রণালয়), ক্যাপ্টেন এ বি তাজুল ইসলাম (অব.) (মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়), স্থপতি ইয়াফেস ওসমান (বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়), বেগম মন্নুজান সুফিয়ান (শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়), দীপংকর তালুকদার (পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়), আহাদ আলী সরকার (যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়), অ্যাডভোকেট মো. শাহজাহান মিয়া (ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়), অ্যাডভোকেট আব্দুল মান্নান খান (গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়), অ্যাডভোকেট মো. কামরুল ইসলাম (আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়), অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু (স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়), অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক (স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়), মো. মোতাহার হোসেন (প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়), মোহাম্মদ এনামুল হক (বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খণিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়), মজিবুর রহমান ফকির (স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়), প্রমোদ মানকিন (সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়), মো. মাহবুবুর রহমান (পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়), ওমর ফারুক চৌধুরী (শিল্প মন্ত্রণালয়), মো. আব্দুল হাই (মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়), মেহের আফরোজ (মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়), জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিক।

 

মন্ত্রিসভায় যারা থাকছেন:

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহিউদ্দীন খান আলমগীর, পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি, বন ও পরিবেশমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু, যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়েদুল কাদের, বাণিজ্যমন্ত্রী জিএম কাদের।

 

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টারা:

এইচটি ইমাম (জনপ্রশাসন), ড. মসিউর রহমান (অর্থনৈতিক), অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মোদাচ্ছের আলী (স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ এবং সমাজকল্যাণ), ড. আলাউদ্দিন আহমেদ (শিক্ষা, সামাজিক উন্নয়ন ও রাজনীতি), ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী (বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খণিজ সম্পদ), ড. গওহর রিজভী (আন্তর্জাতিক সম্পর্ক)।

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সচিবালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘উপদেষ্টারা এখনো পদত্যাগপত্র জমা দেননি। তাদের বিষয়ে এখনো কিছু জানা যায়নি। এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন প্রধানমন্ত্রী।’  

 

তবে সূত্র জানিয়েছে, উপদেষ্টারা অন্তর্র্বতীকালীন সরকারে থাকছেন। সেই সঙ্গে বর্তমান ৬ উপদেষ্টার পাশাপাশি আরও এক উপদেষ্টা যোগ হচ্ছেন। তিনি হলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু।