মঙ্গলবার, ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বাড়ায় ক্ষুব্ধ ভোক্তারা

news-image

বোতলজাত সয়াবিন তেল দাম আগের তুলনায় লিটার প্রতি চার টাকা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে খোলা সয়াবিন তেলের দাম প্রতি লিটারে দুই টাকা কমানো হয়েছে। এ ছাড়া সুপার পাম তেলের দামও নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী।

এ ছাড়াও প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, সুপার পাম তেল প্রতি লিটারের (খোলা) দাম সর্বোচ্চ ১৩৫ টাকা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। পাম তেলের দাম আগে নির্ধারণ করা ছিল না বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

ভোজ্যতেলের ওপর থেকে মূল্য সংযোজন কর (মূসক/ভ্যাট) প্রত্যাহারের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার কারণে দাম নির্ধারণ করা হয়েছে বলে ব্রিফিংয়ে জানিয়েছেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম।

মিল গেট থেকে কর দিয়ে এখন পণ্য সরবরাহ করতে হবে। তাই সময় দেওয়ারও সুযোগ নেই। ট্যারিফ কমিশনের সঙ্গে অ্যাসোসিয়েশনের আলোচনার পরিপ্রেক্ষিত সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী। এর আগে সয়াবিন তেলের দাম লিটারে ১০ টাকা বাড়ানোর সুপারিশের কথা জানিয়েছিলেন দেন মিল মালিকরা।

গত মঙ্গলবার থেকে প্রস্তাবিত নতুন এই দাম কার্যকরের ঘোষণা দিয়ে বাণিজ্যসচিব বরাবর চিঠি দেয় কোম্পানিগুলো সংগঠন বাংলাদেশ ভেজিটেবল ওয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন। তবে সেদিন ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে সয়াবিনের মূল্যবৃদ্ধির ‘সুযোগ নেই বলে জানিয়েছিলেন বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী আহসানুল ইসলাম।

এদিকে রাজধানীর নিউমার্কেট, হাতিরপুল বাজার ও কারওয়ান বাজারের মুদি দোকানগুলো ঘুরে দেখা যায়, সরকারের এ সিদ্ধান্তে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে ভোক্তাদের মধ্যে। ব্যবসায়ীরা বলছেন এখনো নতুন তেলের দামের প্রভাব বাজারে পড়েনি। সরকারের নতুন সিদ্ধান্ত অনুসারে প্রতি লিটার বোতলজাত তেলের দাম ১৬৩ টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়াল সর্বোচ্চ ১৬৭ টাকা। আর ৫ লিটার বোতলজাত তেলের দাম ৮০০ টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়াল ৮১৮ টাকা। আর প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেলের দাম ১৪৯ টাকা থেকে কমে দাঁড়াল ১৪৭ টাকা।

হাতিরপুল বাজার থেকে ব্যবসায়ী আব্দুল্লাহ আল মামুন ৫ লিটারের দুই বোতল মোট১০ লিটার বোতল জাত সয়াবিন তেল কিনছিলেন পরিবারের জন্য। তিনি বলেন, আমি মাত্র ৫ লিটারের দুই বোতল সয়াবিন তেল কিনলাম ১৬০০ টাকা করে তবে দোকানি বলছিলেন বাজারে যে অবস্থা কালই হয় তো নতুন বোতলে তেল আসলে ৫ লিটারের দাম পরবে ৮১৮ টাকা। এভাবে যদি সরকার প্রতিটি জিনিস পত্রের দাম বাড়াতে থাকে তাহলে আমাদের ভালোভাবে জীবনযাপন করা মুশকিল হয়ে পরবে।

মুদির দোকানের বিক্রেতা রাজিব বলেন, আমরা আজ অবধি ১৬৩ টাকা বিক্রি করছি প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল। কিন্তু নতুন করে আজ বেড়েছে তেলের দাম তাই নতুন তেল ঢুকলেই ৪ টাকা বেশি দামে বিক্রি হবে। কিন্তু আপাতত আগের দামেই বিক্রি করছি। রোজার আগে গত ১ মার্চ যখন বোতলজাত ১ লিটার সয়াবিনের দাম ১০ টাকা কমিয়ে ১৬৩ টাকা করা হয়। তখন ৫ লিটার বোতলজাত সয়াবিনের দাম নির্ধারণ করা হয়েছিল ৮০০ টাকা।