বুধবার, ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

কেন বিরক্ত রাকুল প্রীত?

news-image

বিনোদন ডেস্ক : চার বছরের পুরনো মাদক মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইডির পক্ষ থেকে রাকুল প্রীত সিং, অভিনেতা রানা দাগুবাতিসহ মোট ১২ জনকে তলব করা হয়েছে। তাদের মধ্যে নায়িকা রাকুল প্রীত সিং ছাড়াও রয়েছেন রবি তেজা, চার্মি কৌর, মুমাইথ খানদের মতো তারকারা।

জানা যায়, পুরী জগন্নাথকে ৩১ আগস্ট, রাকুল প্রীত সিংকে ৩ সেপ্টেম্বর, রানা দাগুবাতিকে ৮ সেপ্টেম্বর, রবি তেজাকে ৯ সেপ্টেম্বর উউ-র দপ্তরে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে।

গতকাল মাদক মামলায় এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের অফিসে হাজিরা দিয়েছেন রাকুল প্রীত সিং। এদিন সকালে হায়দরাবাদের জোনাল অফিসে পৌঁছান নায়িকা। রাকুল প্রীত সিংয়ের হাজিরা দেয়ার ছবি উঠে এসেছে সংবাদ মাধ্যমের ক্যামেরায়ও। নিরাপত্তা বেষ্টনির মধ্যে দিয়েই হায়দরাবাদে ইডির জোনাল অফিসে ঢুকতে দেখা যায় রাকুলকে।

২০১৭ সালে তেলেঙ্গানাতে ৩০ লাখ টাকার মাদক আটক করে পুলিশ। এই মামলায় হায়দরাবাদের আবগারি বিভাগের তরফে একটি মামলা রুজু করা হয়। এক্ষেত্রে অর্থ তছরুপের একটি মামলার তদন্ত শুরু করে ইডি। একাধিক দক্ষিণী অভিনেতার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু হয়।

তবে ইডির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আপাতত কোনো প্রমাণ না থাকায় এবার শুধুমাত্র সাক্ষী হিসেবেই রাকুল প্রীত সিংদের ডেকে পাঠানো হয়েছে।

যদিও বিষয়টি নিয়ে বেশ বিরক্ত রাকুল। এ নায়িকার দাবি, এটা হয়রানি ছাড়া কিছুই না। তারপরও আমি আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। সেই মাদক মামলায় কোনো ধরনের জড়িত হওয়ার প্রমাণ পায়নি পুলিশ। সাক্ষী হিসেবে হাজিরা দিয়েছি। কিন্তু যে মামলার সঙ্গে কোনো ধরনের সংশ্লিষ্টতা আমার নেই সেখানে এমন হাজিরা দেয়াটা যুক্তিযুক্ত নয়। কারণ আমার শুটিং রয়েছে। আমি কয়েকটি ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত। এগুলো সব বড় প্রজেক্ট। আমি একদিন শুটিংয়ে না থাকলে অনেক টাকার লোকসান হয়ে যায়। সেটা প্রযোজকের ক্ষতি, পুরো ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ক্ষতি। আমি আশা করবো, এসব হয়রানি যেন বন্ধ হয়। সবাইকে যেন স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপন করতে দেয়া হয়।