শনিবার, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

‘জনগণ সরকার পতনের ক্ষণগণনা শুরু করেছে’

bnp_thereport24ডেস্ক রির্পোট : আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বন্দুকের নল ও দলকানা কিছু প্রচারমাধ্যম নির্ভর সরকার এখন পতনের শেষ সিঁড়িতে দাঁড়িয়ে আছে বলে দাবি করেছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন বিশদলীয় জোট। জনগণ সরকারের পতনের ক্ষণগণনা শুরু করেছে বলেও দাবি করেছে জোটটি।
বৃহস্পতিবার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে বিশদলীয় জোটের পক্ষে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদ এ দাবি করেন।
বিবৃতিতে সরকারের প্রতি গণদাবি মেনে নিয়ে পদত্যাগের আহ্বান জানানো হয়। দাবি মানা না হলে আগামী রবিবার থেকে দেশব্যাপী হরতালসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে উল্লেখ করা হয়।
বিবৃতিতে সালাহ উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘জনগণ এখন সরকার পতনের ক্ষণগণনা শুরু করেছে। পুলিশ বাহিনীকে ফ্রাঙ্কেনস্টাইনের দৈত্যে পরিণত করে সরকার নিজেকে আপাত নিরাপদ মনে করলেও যেকোনো মুহূর্তে বন্দুকের নল ঘুরে যেতে পারে। রাষ্ট্রশক্তির চূড়ান্ত নৈরাজ্যের বিপরীতে জাগ্রত গণশক্তির বিজয় আসন্ন।’
বিবৃতিতে সালাহ উদ্দিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী বুধবার সংসদে দম্ভ সহকারে বলেছেন- জনগণ বিএনপির সঙ্গে নেই। ২০ দলের ৭ দফা ব্যক্তিস্বার্থের দাবি। জনগণ যদি আওয়ামী লীগের সঙ্গে থাকে তাহলে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনকে ভয় পায় কেন? জনগণকে ভয় পায় কেন? নির্বাচন দিন, প্রমাণ হয়ে যাবে জনগণ কাদের সঙ্গে আছে।
তিনি দাবি করেন, ৭ দফা দাবির প্রত্যেকটি গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানকে শক্তিশালী করার জন্য।
বিশদলীয় জোটের মুখপাত্র বলেন, প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতার জন্য রাজনীতি করেন না বলে প্রায়ই ঘোষণা দিয়ে থাকেন। তাহলে এত গণহত্যা চালিয়ে লুন্ঠনকৃত মসনদ রক্ষা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন কেন? জনগণের ওপর আস্থা হারিয়ে, দেশের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ ও নাগরিক সমাজকে অবজ্ঞা করে এবং সারা বিশ্বকে অস্বীকার করে ফ্যাসিবাদী একদলীয় রাষ্ট্রব্যবস্থা কায়েমের স্বপ্ন কখনোই পূরণ হবে না। এদেশের জনগণ তা কখনোই হতে দেবে না।
প্রধানমন্ত্রীকে আবারও আহ্বান জানিয়ে সালাহ উদ্দিন বলেন, গণআন্দোলনে নির্মম পতনের হাত থেকে যদি বাঁচতে চান, জনরোষের কবল থেকে যদি রক্ষা পেতে চান, তাহলে অবৈধ ক্ষমতা আঁকড়ে থাকার প্রবল উন্মাদনা পরিত্যাগ করে দ্রুত পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের ঘোষণা দিন। প্রতিহিংসা ও বিদ্বেষমূলক রাজনীতি পরিত্যাগ করে জনদাবির প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করুন।
বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব গণমাধ্যমে সরকারের হস্তক্ষেপ প্রসঙ্গে সম্পাদক পরিষদের উদ্বেগ প্রকাশকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, সংবাদপত্রসহ সকল গণমাধ্যমকে আমরা সরকারী অবৈধ হস্তক্ষেপের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়ে জাতীয় জীবনের এই ক্রান্তিলগ্নে গণতন্ত্র মুক্তির লড়াইয়ে শরিক হওয়ার উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।
তিনি চলমান অবরোধ-হরতাল কর্মসূচি অত্যন্ত শান্তিপূর্ণভাবে পালন করায় বিএনপি চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় জোট নেতা খালেদা জিয়ার পক্ষে জোটের সকল নেতাকর্মীসহ দেশবাসীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানান।
বিবৃতিতে তিনি বিএনপি ও ২০ দলীয় জোটের সিনিয়র নেতাসহ সারাদেশে গ্রেফতারকৃত নেতাকর্মীদের নামে মামলা প্রত্যাহার করে তাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।

এ জাতীয় আরও খবর