রবিবার, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সরাইলে ত্রানের টিন আত্নসাতকারী বিষয়টি খতিয়ে দেখছে গোয়েন্দা’রা

Crime1নিজস্ব প্রতিবেদক : ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে বাউল বিদ্যালয় নামে ত্রানের টিন আত্নসাতকারী বিষয়টি খতিয়ে দেখছে একটি গোয়েন্দা সংস্থা। এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে ও লিখিত আবেদন করেছে স্থানীয় বাসিন্দা রবিউল ইসলাম।এানের টিন আত্নসাতে বিষয়ে  সংবাদ প্রকাশের পর থেকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চললেও এখনো ত্রানের টিন ফেরত নিতে প্রশাসন কোন ব্যবস্থা গ্রহন করেনি।
জানা যায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের সংসদ সদস্য এড. জিয়াউল মৃধার কাছ থেকে সরাইল উপজেলার কালিকচ্ছে বাউল বিদ্যালয়’র নামে ত্রানের তিন বান টিন বরাদ্দ নেন স্থানীয় দুর্গাচরণ দাস। বরাদ্দ নেওয়ার তিন বছর পার হয়ে গেলে আজও তিনি বাউল বিদ্যালয় নির্মাণ করেনি। এ বিষয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনে ও লিখিত আবেদন করেছে স্থানীয় বাসিন্দা রবিউল ইসলাম। তবে দুর্গাচরণ দাস স্থানীয় সংসদ সদস্য এড. জিয়াউল মৃধার আস্থাভাজন লোক হওয়ায় প্রশাসন তার বিরুদ্ধে এখনো কোন ব্যবস্থা নেয়নি। তবে তার বিষয়টি একটি গোয়েন্দা সংস্থা বাউল বিদ্যালয়’র নামে তিন বান ত্রানের টিন আত্নসাতের বিষয়টি গুরত্বসহকারে খতিয়ে দেখছে। এই গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিনিধি নাম প্রকাশে অনিচ্ছিুক জানান  বাউল বিদ্যালয়ের নামে যদি আর কোন সরকারী অর্থ বরাদ্দ আনা হয়েছে কিনা তাও দেখা হচ্ছে। অভিযুক্ত দুর্গাচরণ দাস’র সাথে একাধিকবার যোগাযোগ করলে তাকে পাওয়া যায়নি।