বুধবার, ১৭ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

র‌্যাবের অপব্যবহার করছে সরকার: খালেদা জিয়া (ভিডিও)

khaleda-out

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, যে উদ্দেশ্য নিয়ে র‌্যাব গঠন করা হয়েছিলো, র‌্যাবকে এখন সে উদ্দেশ্যে ব্যাবহার না করে ভিন্ন উদ্দেশ্যে ব্যাবহার করা হচ্ছে।

র‌্যাবের অপকর্মের খতিয়ান তুলে ধরে বেগম জিয়া বলেন, তাদের দিয়ে এ সরকার মানুষ ধরে নিয়ে হত্যা করে। এখনও পর্যন্ত আমাদের দলের ৩১০ জনকে হত্যা করেছে, ৩৬ জনকে গুম করেছে।

মঙ্গলবার বিকেলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিয়াজ মোহাম্মদ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ২০ দলীয় জোট আয়োজিত বিশাল জনসভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার এ বক্তব্যে দেশের সমসাময়িক ও আলোচিত অনেক বিষয় স্থান পেয়েছে। নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুনের ব্যাপারে বেগম জিয়া বলেন, নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের ঘটনায় কারা জড়িত তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জানেন। এ ঘটনার সাথে শেখ হাসিনার যোগসূত্র আছে বলে উল্লেখ করেন বেগম জিয়া। তিনি বলেন,র‌্যাবের এক শীর্ষ কর্মকর্তা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত বলে খবর বেরিয়েছে। তিনি কিভাবে পদে থাকেন। তাকে ধরলেই সব বেরিয়ে যাবে, তাই তাকে ধরা হচ্ছে না।

এ সরকারকে অবৈধ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিনা ভোটে ক্ষমতায় বসে একের পর এক অবৈধ আইন করছে সরকার। জনগণের টাকা লুট করছে। এক দিন জনগণের কাঠগড়ায় জবাবদিহি করতে হবে তাদের। আওয়ামী লীগ দেশে একদলীয় শাসন কায়েম করেছে। বিদ্যুতের উৎপাদন নিয়ে জনগণকে ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত করছে। কুইক রেন্টালের নামে জনগণের টাকা লুট করছে সরকার। আওয়ামী লীগ দলটি হল- ‘যা পাই তাই খাই। হাঁটি হাঁটি খাই খাই’ মন্তব্য করেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী।

সরকারকে সংবিধানের লঙ্ঘনকারী আখ্যায়িত করে বিএনপি নেত্রী বলেন, এ সরকার অনির্বাচিত সরকার, অবৈধ সরকার। সরকার নিজেরাই সংবিধান লঙ্ঘন করে চলেছে। যার জন্য আজ দেশের এ দুরাবস্থা। আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি। প্রতিদিন খুন গুম রাহাজানি হচ্ছে।

এ জনসভায় এ সময় ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা উকিল আব্দুস সাত্তার ভূঁইয়া, ইসলামী ঐক্যজোটের কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আবুল হাসনাত আমিনী, বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিরুল ইসলাম খান আলীম, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব জহিরুল হক খোকন, যুগ্ম-আহ্বায়ক খালেদ হোসেন মাহবুব শ্যামল, জিল্লুর রহমান, অ্যাডভোকেট শফিকুল ইসলাম, রফিকুল হক, অ্যাডভোকেট গোলাম সারোয়ার খোকন, সিরাজুল ইসলাম, খেলাফত মজলিসের জেলা নেতা হাফেজ মাওলানা এমদাদুল্লাহ, মাওলানা মোহাম্মদ আলী ও ইসলামী ঐক্যজোটের জেলা সেক্রেটারি হাফেজ ইদ্রিস প্রমুখ।

http://www.youtube.com/watch?v=cwCXGCrnJ1I