বৃহস্পতিবার, ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আধা ঘণ্টার জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী ১৯ বছরের তরুণ!

ডেস্ক রিপোর্ট : মনমোহন সিং ক্ষমতা ছাড়ার পর আধা ঘণ্টার জন্য ভারতের প্রধানমন্ত্রী হয়েছিল ১৯ বছরের এক তরুণ। খবরটা শুনে আশ্চর্য হচ্ছেন? সত্যিই কিন্তু ঘটেছে এই ঘটনা, ওই অল্প সময়েই সাড়া ফেলেছে সেদেশের রাজনৈতিক অঙ্গনে, শুরু হয়েছে বির্তক। কায়সার আলী নামের সেই তরুণ প্রাইম মিনিস্টার অব ইন্ডিয়া অফিসের (পিএমও) টুইটার ব্যবহারের ক্ষমতাবলে মনমোহন সিং এর পর আধাঘণ্টার জন্য ভারতের ভার্চুয়াল প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। কারণ মনমোহন ক্ষমতা ছাড়ার পরবর্তী আধাঘণ্টা পিএমও টুইটারের নিয়ন্ত্রণ ছিল কায়সার আলীর হাতে। ভারতের উত্তর প্রদেশের ছেলে কায়সার আলী বিবিসিকে জানায়, অ্যাকাউন্ট খোলার জন্য তিনি টুইটারে ভালো একটি নাম খুঁজছিলেন। যখন তিনি দেখতে পেলেন @পিএমওইন্ডিয়া রেজিস্টার্ড করা হয়নি তখন তিনি সেটি ব্যবহার শুরু করেন। 


তিনি বলেন, আমি জানি না পিএমওইন্ডিয়া অ্যাকাউন্ট পরীক্ষা করার বিষয়টি কিভাবে আমার মাথায় আসলো। যখন আমি দেখতে পেলাম সেটি উন্মক্ত, নিজের করে নিলাম। 


বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী মনোমহন সিং ২০১২ সালে @পিএমওইন্ডিয়া চালু করেন। এর ১০ লাখের বেশি ফলোয়ার রয়েছেন। এ মাসের শুরুর দিকে মনমোহন সিং অফিস ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেন। এরপর প্রধানমন্ত্রী অফিসের কর্মকর্তারা বিভিন্ন সময়ে করা মনমোহন সিং এর টুইইগুলো আর্কাইভ করার সিদ্ধান্ত নেন। পরে নাম বদলে হয়ে যায় @পিএমওইন্ডিয়াআর্কাইভ।


আলী বলেন, আমি সম্মানিত-উচ্ছ্বসিত একইসঙ্গে ভয়ও পেয়েছিলাম। মাত্র ১৯ বছরের ছেলে হয়ে সরকারের এসব বিষয় হ্যান্ডেল করেছি।


বিষয়টি আলী পরিবার জানতে পেরে তাকে গালমন্দ করেছে। তাকে ভারতের জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার জন্য বলেছে তার পরিবার।

এ জাতীয় আরও খবর