বুধবার, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিশ্বকাপের কোচ: গ্রুপ ‘বি’: চিলি ‘যেকোনোভাবে জেতাটাই মূল লক্ষ্য নয়’

নজরে এসেছিলেন চিলির ক্লাব ইউনিভার্সিদাদ দে চিলিকে তিনটি লিগ ও একটি কোপা সুদামেরিকানা জিতিয়ে। ২০১২ সালে চিলির দায়িত্ব নেওয়ার পর দলকে নিয়ে এসেছেন ব্রাজিল বিশ্বকাপে। ওয়ার্ল্ড সকারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে চিলির আর্জেন্টাইন কোচ হোর্হে সামপাওলির আক্রমণাত্মক ফুটবল-দর্শনটাই প্রতিফলিত হলো

হোর্হে সামপাওলি কে?

হোর্হে সামপাওলি: আমি বিনয়ী, অধ্যবসায়ী, আবেগপ্রবণ। যেখানেই কাজ করি, কোচ হিসেবে আমি একটা বিপ্লব আনতে চাই। আমি উদ্ভাবনী কিছু করে দেখাতে, বদলে দিতে পছন্দ করি। এটাই আমার মূল বৈশিষ্ট্য। যখন আমি একটা জায়গা ছেড়ে যাই, আশা করি সবাই আমাকে এমন একজন মানুষ হিসেবে মনে রাখবে যে খাটতে পছন্দ করে, নিজের কাজটা ভালোবাসে।

খেলোয়াড়দের আপনি কী শিক্ষা দেন?

সামপাওলি: মানুষ যেটিতে অভ্যস্ত নয়, আমি সেটা সঞ্চারিত করতে পছন্দ করি। আমি সবার সঙ্গে মিশতে চাই, ভালো একটা সম্পর্ক গড়তে চাই। শুধু পেশাদারির নয়, ব্যক্তিগতও। আমি তাদের বলি স্বপ্ন দেখা না ছাড়তে। বলি, তারা যাতে প্রতিদিন নিজের সেরাটা দেওয়ার জন্য ১১০ ভাগ ঢেলে দেয়। নিজেদের পতাকাকে তাদের ভালোবাসতে হবে। শুধু টাকার জন্য আপনার ফুটবল খেলার দরকার নেই।

বিশ্বকাপে চিলির প্রত্যাশা কী?

সামপাওলি: চিলিয়ান ফুটবলারদের উচ্চ মানটা আমরা দেখাতে চাই। আমরা এমন একটা শক্তিশালী দল গড়েছি, যারা দলগতভাবে এবং ফলের বিচারেও খুব ভালো কিছু করে দেখিয়েছে। বিশ্বের সেরা দলগুলোর সঙ্গে আমাদের ভয়ডরহীন খেলতে হবে। আমাদের অবশ্যই প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হতে হবে।

 প্রতিপক্ষের ওপর কি চিলির খেলার ধরন নির্ভর করবে?

সামপাওলি: আমার ভাবনা হলো, সব ম্যাচেই চিলিকে অগ্রণী ভূমিকায় থাকতে হবে। চিলি তাদের খেলার ধরন বদলাবে না। নিজেদের অর্ধে বসে থাকারও কোনো প্রশ্নই ওঠে না, চিলিকে সব সময় আক্রমণ করতে হবে। আমরা আমাদের খেলার ধরন বদলাব না।

প্রথম রাউন্ডে চিলি কীভাবে খেলবে?

সামপাওলি: আমরা আক্রমণ করব। অন্য প্রতিপক্ষরা কেমন করে সেটির জন্য বসে থাকলে আমাদের পক্ষে জেতা অসম্ভব। আমাদের স্পেনের সমান বলের দখল থাকতে হবে। হল্যান্ড দ্রুত ওপরে ওঠে, সেটা আমাদের ঠেকিয়ে দিতে হবে। অস্ট্রেলিয়ার রক্ষণ খুব ভালো। ডিফেন্সিভ পজিশনে আমাদের অনেক খেলোয়াড়ের সঙ্গে যুঝতে হবে। তবে যেকোনোভাবে জেতাটাই চিলির মূল লক্ষ্য নয়। দল যদি নিজেদের ধরনে না খেলে, তাহলে আমার ঘুম ভালো হবে না।

আপনার দল কি ফাইনালে যাওয়ার মতো শক্তিশালী?

সামপাওলি: দলগতভাবে ভালো খেললেই শুধু আমাদের সুযোগ আছে। ব্যক্তিগত নিরিখে ব্রাজিল, আর্জেন্টিনা, স্পেন, জার্মানি ও ইতালির সঙ্গে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারব না। ইউরোপের সেরা ক্লাবগুলোয় দুর্দান্ত খেলা কিছু খেলোয়াড় আছে আমাদের। অন্যরাও কিছু ম্যাচ খেলছে, বেঞ্চ থেকে সুযোগ পাচ্ছে। আবার কেউ কেউ খুব একটা খেলার সুযোগই পাচ্ছে না।

সমর্থকদের উদ্বেগটা কীভাবে সামলাচ্ছেন? তারা তো চিলির হাতে বিশ্বকাপ দেখতে চায়…

সামপাওলি: সমর্থকেরা তাদের চোখে দলকে বিচারের সময় একটু বেশিই আত্মবিশ্বাসী। আমরা দারুণ একটা বাছাইপর্ব পেরিয়ে এসেছি। কিন্তু তার মানে এই না যে, আমরা চ্যাম্পিয়ন হব। তাদের বুঝতে হবে বিশ্বকাপে আমাদের সেরা দলগুলোর সঙ্গে খেলতে হবে। নভেম্বরে ওয়েম্বলিতে আমরা ইংল্যান্ডকে হারিয়েছিলাম। কিন্তু চার দিন পর আমরা ব্রাজিলের কাছে হেরে যাই। এর মানে বড় দলগুলোর সঙ্গে চার বা পাঁচ দিন পর পর খেলাটা মোটেই সহজ হবে না।

এ জাতীয় আরও খবর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কোরবানীর হাটে জন্য প্রস্তুত খামারিরা,শেষ সময়ে পরিচর্যায় ব্যস্ত

নতুন নোট বাজারে আসছে বুধবার

শিগগিরই ৫-১২ বছরের শিশুদের করোনার টিকা দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

এক দিনে রেকর্ড ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

বিষাক্ত হলুদ ধোঁয়ায় ঢেকে গেল জাহাজ! মুহূর্তে ১২ জনের মৃত্যু

বিয়ের আসরে কনের পা ছুয়ে প্রণাম বরের!

বিশ্বের সব স্বৈরাচারকে টেক্কা দিয়েছে আওয়ামী সরকার : ফখরুল

আসছে ‘ডিজিজ এক্স’! অজানা রোগের মহামারীর শঙ্কা বিজ্ঞানীদের

রেসলিংয়ের মঞ্চে আরব নারী!

শ্রীলঙ্কায় এবার পেট্রল বিক্রি বন্ধ

পদ্মা সেতুর টোল প্লাজার বেরিয়ারে বাসের ধাক্কা

গাড়ি আমদানিতে চট্টগ্রাম বন্দরকে পেছনে ফেলল মোংলা‍