বুধবার, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দীপিকা-প্রেম নিয়ে মুখ খুললেন রণবীর সিং

5301e2bda7372-Deepika‘রাম-লীলা’ ছবিতে জুটি বেঁধে অভিনয় করতে গিয়ে দারুণ সখ্য গড়ে ওঠে দীপিকা পাড়ুকোন ও রণবীর সিংয়ের মধ্যে। একসঙ্গে ঘুরে বেড়ানোর পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে ঘন ঘন দেখা যেতে থাকে এ জুটিকে। এর পরিপ্রেক্ষিতে তাঁদের প্রেম নিয়ে জোর গুঞ্জন ছড়ায় বলিউডে। সম্প্রতি রণবীর স্বীকার করেছেন, তাঁর জীবনে দীপিকা বিশেষ স্থান দখল করে আছেন। কিন্তু বন্ধুত্বের বাইরে আর কোনো সম্পর্ক নেই দাবি করে যেন শাক দিয়ে মাছ ঢেকেছেন ২৮ বছর বয়সী এ তারকা অভিনেতা।



এ প্রসঙ্গে রণবীরের ভাষ্য, ‘আমার জীবনে বিশেষ স্থান দখল করে আছেন দীপিকা। আমার কাছে তাঁর গুরুত্বটা অনেক বেশি। দীপিকা এমন একজন মানুষ যাঁর প্রতি অগাধ শ্রদ্ধা রয়েছে আমার। তিনি আমার খুব কাছের একজন মানুষে পরিণত হয়েছেন। ব্যক্তি হিসেবে দীপিকা চমত্কার। তাঁর অনন্য রূপ আর গুণে আমি মুগ্ধ ও বিস্মিত।’ সম্প্রতি এক খবরে এমনটিই জানিয়েছে হিন্দুস্তান টাইমস।



দীপিকার সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন সম্পর্কে জানতে চাইলে রণবীর বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমি সম্পূর্ণ একা। তবে জীবনসঙ্গী নির্বাচনের জন্য আমি পুরোপুরি প্রস্তুত। আমি আর দীপিকা শুধুই বন্ধু। মাঝে-মধ্যেই আমরা একসঙ্গে বের হয়ে পড়ি এবং বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে বেড়াই। আরও অনেকের সঙ্গেও আমি ঘুরে বেড়াই। কিন্তু তাঁরা দীপিকার মতো এত বেশি জনপ্রিয় না হওয়ায় তা নিয়ে খুব একটা হইচই হয় না। সত্যি বলতে কি, ঘুরে-বেড়ানোর সঙ্গী হিসেবে দীপিকার কোনো তুলনা হয় না। আমি তাঁর সঙ্গ খুবই উপভোগ করি।’



রণবীর আরও বলেন, ‘বর্তমান প্রজন্মের বন্ধু-বান্ধবরা যেভাবে ঘুরে বেড়ায় আমি আর দীপিকাও ঠিক সেভাবেই ঘুরে বেড়াই। অভিনেতা অর্জুন কাপুরসহ কয়েকজন সহকারী পরিচালক আমার স্কুলের বন্ধু। আমি তাঁদের সঙ্গেও একইভাবে ঘুরে-বেড়াই। আমি আমার প্রতিটি বন্ধুর প্রতি খুবই যত্নশীল।’



গত বছরের শেষ দিকে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন রণবীর। হাসপাতাল থেকে ফিরে এক সাক্ষাত্কারে এ অভিনেতা বলেছিলেন, তিনি ‘লাভেরিয়া’ রোগে ভুগছেন। এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি এবং আবারও বলছি, খুবই বোকার মতো একটি সাক্ষাত্কার দিয়েছিলাম আমি যার কোনো রকম গ্রহণযোগ্যতা নেই। স্রেফ মজা করার জন্যই আমি ওই কথা বলেছিলাম। আমি মজা করতে ভালোবাসি। আশপাশের মানুষকে খুশি রাখতে আমার খুব ভালো লাগে। এটা আমার চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য। আমি সব সময় এমনই থাকতে চাই।’