শনিবার, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দশমের প্রথম অধিবেশন বুধবার

parlament-2দশম জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশন বসতে যাচ্ছে বুধবার সন্ধ্যায়। এ অধিবেশনের মধ্য দিয়েই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন এ সংসদের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হবে। প্রথম অধিবেশনে প্রথা অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ অ্যাডভোকেট তার বক্তব্য দেবেন। পাশাপাশি নতুন সংসদের জন্য স্পিকার ও ডেপুটি স্পিকারও মনোনিত করা হবে।

তবে এবারের সংসদেও স্পিকার হিসেবে ড. শিরীন শারমিন থাকছেন। এ বিষয়টি অনেকটা নিশ্চিত হয়ে গেছে। তবে ডেপুটি স্পিকারের তালিকায় যুক্ত হয়েছে নতুন নাম। শওকত আলীর স্থানে দেখা যাবে ডা. ফজলে রাব্বী মিয়াকে। ইতিমধ্যে এ বিষয়গুলো আওয়ামী লীগের সংসদীয় কমিটিতে ঠিক করা হয়েছে।

প্রথম অধিবেশন খুব দীর্ঘায়িত করা হবে না বলে সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে। শপথ নেয়ার পরে মৃত্যুবরণ করা সংসদ সদস্য শওকত মোমেন শাহজাহানের মৃত্যুতে শোক উত্থাপন করা হবে অধিবেশনের প্রথম দিনেই। তার ওপর আলোচনা শেষে রাষ্ট্রপতির ভাষণের মধ্য দিয়ে অধিবেশনে মুলতবী টানা হতে পারে।

তবে এ অধিবেশনের মেয়াদ কতোদিন হবে সে বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত এখনো নেয়া হয়নি। প্রতিবারের মতো অধিবেশন শুরুর আগে সংসদ ভবনে কার্য উপদেষ্টা পরিষদের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এবারের সংসদে প্রথমবারের মতো বিরোধী দল হিসেবে জাতীয় পার্টিকে দেখা যাবে। পার্টির সিনিয়র প্রেসিডিয়াম সদস্য রওশন এরশাদ বিরোধীদলীয় নেতার আসনে বসবেন। অপরদিকে সংসদ নেতা হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশাপাশি উপনেতা হিসেবে সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীই বহাল থাকছেন। ইতিমধ্যে সরকারি দল ও বিরোধী দল তাদের নিজ নিজ চিফ হুইপ নির্ধারণ করে ফেলেছেন।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বয়কট ও অংশ না নেয়ায় অধিবেশনে দেশের অন্যতম প্রধান দল বিএনপি ও জামায়াতের কোনো সদস্যকে দেখা যাবে না।

এদিকে সংসদের বিরোধী দলের জন্য প্রথম সারিতে পাঁচটি আসন বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি দলে মন্ত্রী থাকায় তিনিও সামনের সারিতে একটি আসন পাবেন। এ আসনগুলোসহ অন্যান্য আসনের কোথায় কে বসবেন সে বিষয়ে দুই দলের চিফ ও অন্যান্য হুইপরা মিলে নির্ধারণ করবেন। নবম সংসদ নির্বাচনেও বিএনপির জন্য প্রথম সারির পাঁচটি আসন বরাদ্দ দেয়া হয়েছিল।

জানা গেছে, এ অধিবেশনে পাসের জন্য মাত্র একটি বিল জমা পড়েছে। বাংলাদেশ সাংবাদিক কল্যাণ ট্রাস্ট বিল, ২০১৪ নামের এ বিলটি আগামী সপ্তাহে সংসদের উত্থাপন করার কথা রয়েছে। তবে প্রধানমন্ত্রী ও অন্যান্য মন্ত্রীদের জবাব দেয়ার জন্য পাঁচশ প্রশ্ন জমা পড়েছে বলে জানা গেছে।

সংসদ এলাকায় বাড়তি নিরাপত্তা
অধিবেশনকে কেন্দ্র করে সংসদ ভবনের চারপাশে নেয়া হয়েছে বাড়তি নিরাপত্তা। সংসদ সংশ্লিষ্ট এলাকায় অধিবেশন চলাকালে সব ধরনের সভা সমাবেশ, মিছিল মিটিং, শোভাযাত্রা ও জমায়েত নিষিদ্ধ করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশ।

পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘নিরাপত্তা স্বার্থেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। অধিবেশন শেষ হয়ে গেলে এ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হবে।’ অধিবেশনকে কেন্দ্র করে এ এলাকায় বাড়তি নিরাপত্তা কর্মীও নিয়োজিত রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০০৯ সালের ২৫ জানুয়ারি শুরু হওয়া নবম জাতীয় সংসদের অধিবেশন শেষ হয় এ বছরের ২৪ জানুয়ারি। সে সংসদে ৪১৮টি কার্যদিবসের মধ্যে তৎকালীন বিরোধী দল মাত্র ৭৬ দিন অধিবেশনে যোগ দেয়। তবে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া সংসদে এসেছিলেন মাত্র ১০ দিন।

এবার সংসদের জন্য ২৯৭ জন সদস্য শপথ নিয়েছেন। এরমধ্যে আওয়ামী লীগ ২৩১, জাতীয় পার্টির ৩৪, ওয়ার্কার্স পার্টি ৬, জাসদ (ইনু) ৫, তরিকত ফেডারেশনের ২, জেপি (মঞ্জু) ২ এবং বিএনএফের একজন শপথ নিয়েছেন।

এ জাতীয় আরও খবর

শিল্পী সমিতির নির্বাচন : সভাপতি মিশা সওদাগর, সাধারণ সম্পাদক ডিপজল নির্বাচিত

তাপপ্রবাহ : প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অ্যাসেম্বলি না করানোর নির্দেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় রাতে ট্রেনের ধাক্কায় বাবার মৃত্যু, আহত মেয়ে

নাসিরনগরে কৃষকলীগের ৫২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

আম দিয়ে পাটিসাপটা

গাজায় মৃত্যু ৩৪ হাজার ছাড়াল

আজ রাতে তীব্র ঝড়ের আশঙ্কা, হুঁশিয়ারি সংকেত

রাজশাহীতে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেলের ৩ আরোহী নিহত

চেন্নাইকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে জয়ে ফিরলো লখনৌ

১৩ জেলায় তীব্র তাপপ্রবাহ, গরম থেকে সহসাই মুক্তি মিলছে না

২৩ নাবিকের ভয়ংকর ৩৩ দিন

তীব্র তাপপ্রবাহ, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আরও ৭ দিন বন্ধের দাবি