শনিবার, ২৭শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

দুই দলের প্রস্তাবে যা আছে-

UNDPতৃতীয় দফা বৈঠকে অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের জন্য প্রস্তাব দিয়েছে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি। দুই দলের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, প্রস্তাব নিয়ে তারা শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী কৌশল নির্ধারণ করা হবে। শিগগিরই পরবর্তী বৈঠক হবে বলেও জানিয়েছেন নেতারা। গতকাল বিকালে ইউএনডিপির কার্যালয়ে দুই দলের আট নেতা বৈঠক করেন। নির্বাচন ও সমঝোতার বিষয়ে এটি ছিল তৃতীয় বৈঠক। সূত্র জানায়, বৈঠকে সরকার দলের প্রতিনিধিদের কয়েকটি প্রস্তাব দিয়েছে বিএনপি। প্রস্তাবগুলো হলো- নির্বাচনের তফসিল পেছানো, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগ, আলোচনা সাপেক্ষে নির্বাচন কমিশনের পুনর্গঠন, বিরোধী নেতাকর্মীদের মুক্তি, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করতে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস, সংসদ ভেঙে দেয়া ও দলীয় কার্যালয়ে প্রশাসনিক বাধা তুলে দিয়ে নেতা-কর্মীদের অবাধ যাতায়াতের সুযোগ দেয়া। এই বিষয়গুলোর ওপর জোর দিয়ে সরকারকে প্রস্তাব দিয়েছে বিরোধী দল। সূত্র জানায়, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য মৌলিক ও বিস্তারিত আলোচনায় যাননি সরকার দলের প্রতিনিধিরা। এ ব্যাপারে তারা প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার কাছে তুলে ধরবেন বলে জানিয়েছেন। সরকারি দলের পক্ষ থেকে হরতাল-অবরোধসহ চলমান আন্দোলন কর্মসূচি না দেয়ার নিশ্চয়তা চাওয়া হয়েছে। শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী রাখার বিষয়ে নেতারা কথা বলেছেন। তবে এ বিষয়ে বিরোধী দলের পরামর্শও চাওয়া হয়েছে। সূত্র জানায়, আলোচনায় কোন বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়নি।
গতকাল বিকাল সোয়া ৪টা থেকে সোয়া ৬টা পর্যন্ত গুলশান-২ নম্বরের ১১০ নম্বর রোডের ১০ নম্বর বাড়িতে ইউএনডিপি’র প্রজেক্ট অফিসে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে মধ্যস্থতাকারী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউএনডিপির আবাসিক প্রতিনিধি নেইল ওয়াকার। বৈঠক শেষে প্রথমে কার্যালয় থেকে বেরিয়ে আসেন আওয়ামী লীগের চার সদস্যের প্রতিনিধি দল। এসময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমরা তাদেরকে কিছু প্রস্তাব দিয়েছি। তারাও আমাদেরকে কিছু প্রস্তাব দিয়েছে। তাদের প্রস্তাবগুলো নিয়ে আমরা আমাদের নেত্রীর আলোচনা করবো। তারাও আমাদের প্রস্তাবগুলো নিয়ে তাদের নেত্রীর সঙ্গে আলোচনা করবে। এরপর পরবর্তী কৌশল নির্ধারণ করা হবে। এরপর একটি গাড়িতে করে আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দলটি চলে যাওয়ার পর কার্যালয় থেকে বের হয় বিএনপির চার সদস্যের প্রতিনিধি দল। এসময় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব সাংবাদিকদের বলেন, সকল দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের সঙ্গে আমরা তিনটি বৈঠক করেছি।  বৈঠকে আমরা তাদের কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দিয়েছি। তারা আমাদের কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দিয়েছে। এই প্রস্তাবগুলো নিয়ে আমরা আমাদের দলের নীতিনির্ধারণী ফোরামে আলোচনা করবো। তারাও তাদের দলের নীতিনির্ধারণী ফোরামে আলোচনা করবে। এবং এ বিষয়ে অতি শিগগিরই আবার বৈঠকে বসবো। এরপর দুটি গাড়িতে করে তারা ইউএনডিপি কার্যালয় ত্যাগ করেন। বৈঠকে আওয়ামী লীগের পক্ষে দলের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, উপদেষ্টা পরিষদ সদস্য আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ ও প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী এবং বিএনপির পক্ষে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ড. আবদুল মঈন খান ও ভাইস  চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। এর আগে গত সোমবার ও মঙ্গলবার জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিব অস্কার ফার্নান্দেজ তারানকোর উপস্থিতিতে দুই দলের এই প্রতিনিধিরা দুই দফা বৈঠক করেন।

এ জাতীয় আরও খবর

আহসান কবীরকে চাপা দেওয়া সিটি করপোরেশনের গাড়িচালক গ্রেপ্তার

নাসিরনগরে স্থায়ী মন্দিরের নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় সভা

নাসিরনগরে ধান ক্ষেত থেকে অজ্ঞাত ব‍্যাক্তির লাশ উদ্ধার

নাসিরনগরে তৈরি হচ্ছে দেশীয় মাছের নানা জাতের শুটকি

বিয়ের আগেই মা হচ্ছেন স্বরা!

রাস্তা হওয়া উচিত ক্যাটরিনার গালের মতো মসৃণ: রাজস্থানের মন্ত্রী

ঢাকায় বিএনপির মশাল মিছিল

খালেদাকে স্লো পয়জনিং করলে বিএনপির লোকেরাই করতে পারে: কাদের

গণতন্ত্রের কথা বলে যুক্তরাষ্ট্র বিভিন্ন দেশকে চাপে রাখতে চায়

লাইসেন্স ছাড়াই ডিএসসিসির গাড়ি চলাচ্ছিলেন হারুন-রাসেল: র‌্যাব

সেই লিটন, এই লিটন

ভোলায় মাঝনদীতে চেয়ারম্যান-মেম্বারদের লক্ষ্য করে গুলি, নিহত ১