মঙ্গলবার, ২৯শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

তারেক-মামুনের মামলার রায়, রাজধানী জুড়ে ব্যাপক নিরাপত্তা

a1বিএনপি সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মানিলন্ডারিং রায় কেন্দ্র করে রাত থেকে রাজধানী জুড়ে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি মোকাবেলায় আইনশৃক্সখলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সবোর্চ্চ সতর্কাবস্থায় থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রোববার ভোররাত থেকে পুলিশ র‌্যাবসহ আইনশৃক্সখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে যানবাহনসহ সন্দেহভাজনদের তল্লাশি চালাচ্ছে।

সকালেও অফিসগামী মানুষদের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ ও র‌্যাব ভ্রাম্যমাণ  চেক পোস্ট বসিয়ে ব্যাগসহ মোটরসাইকেল গুলোতে তল্লাশি চালাতে দেখা গেছে।  

এছাড়া মোড়ে মোড়ে পুলিশ চেক পোস্ট বসিয়ে রিকসা, সিএনজিচালিত অটোরিকশা, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস থামিয়ে ব্যাপক তল্লাশি করছে পুলিশ। চেকপোস্টের পাশাপাশি পোষাকে ও সাদা পোষাকে পুলিশি টহল বাড়ানো হয়েছে।

রাজধানীর আমিন বাজার, আব্দুল্লাহপুর, বাবুবাজর ব্রিজ ও যাত্রাবাড়ীসহ চার প্রবেশ পথে বসানো হয়েছে বিশেষ কয়েকটি চেক পোস্ট।

ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার আব্দুল জলিল মন্ডল বাংলানিউজকে জানান,  নাশকতার আশঙ্কায় নেওয়া হয়েছে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

তিনি বলেন, বিএনপির সহযোগী সংগঠন ছাত্রদলে সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান  তাকের রহমানে জনপ্রিয়তা বেশি। আর এ জন্য রায় ঘোষণার পর তার সমর্থকরা রায়ে উত্তেজিত হয়ে যে কোনো ধরনের নাশকতা ঘটাতে পারে এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রাত থেকে চেক পোস্টসহ পুলিশি টহল বাড়ানো হয়েছে।

তিনি আরো জানান, গত কয়েক মাস থেকে জামায়াত-শিবির তাদের অপতৎপরতা বাড়িয়ে দিয়েছে, হরতাল বা কোনো রাজনৈতিক কর্মসুচি ঘোষণা করা হলেই তারা নানা ধরনের নাশকতামূলক কাজ করে। আর রায়ের ঘোষণার সুযোগ কাজে লাগিয়ে তারা আবার ও তৎপর হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, হরতালে ঘোষণা আসলেই ককটেল ফাটিয়ে জনমনে আতংক ছড়ানো, বিভিন্ন যানবাহনে আগুন দিয়ে সাধারণ মানুষের ক্ষতি করা হচ্ছে। এসব দমনে পুলিশকে কঠোর অবস্থানে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

এদিকে রায় ঘোষণা উপলক্ষে পুরানো ঢাকার আদালত পাড়ায় নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। রায় সাহেব বাজার মোড় থেকে কয়েক স্থরের পুলিশি তল্লাশি করে আদালত চত্বরে প্রবেশ করতে দেওয়া হচ্ছে।

কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্তকর্তা (ওসি) শাহ আলম জানান,  রায়কে কেন্দ্র করে আদালত ও পার্শ্ববর্তী এলাকায় বিশেষ নিরাপত্তা নেওয়া হয়েছে। সন্দেহভাজনদের তল্লাশি করে আদালতে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে।

তিনি আরো জানান, গোয়েন্দা তথ্য ভিত্তিতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আগের যে কোনো সময়ের থেকে বাড়ানো হয়েছে। পোষাকে পুলিশের পাশাপাশি  আদালত এলাকায়  পুলিশের আর্মড পার্সোনাল ক্যারিয়ার (এপিসি) ও  জলকামান প্রস্তুত রাখা হয়েছে। বাংলানিউজ